• আপডেট টাইম : 11/02/2021 06:48 PM
  • 260 বার পঠিত
  • শরীফুল ইসলাম কুষ্টিয়া থেকে
  • sramikawaz.com

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে কবর থেকে লাশের মাথা ও হাত কেটে নিয়ে উধাও করা হয়েছে। উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন এলাকার মির্জা আলম চেনু বিশ্বাসের কবর খুড়ে কে বা কারা তার লাশের মাথা ও ডান হাত কেটে নিয়ে যায়। আজ বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রয়ারী সকাল ১০টার দিকে এলাকাবাসী প্রয়াত চেনু বিশ্বাসের কবর খোড়া ও কবরের উপরে খাপাচি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার ও দৌলতপুর থানার ওসি (তদন্ত) শাহাদত হোসেন ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে এমন দৃশ্য দেখেন।
পরে কবরটি মাটি দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাৎক্ষনিকভাবে জানা না গেলেও ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে বলে দৌলতপুর থানার ওসি (তদন্ত) শাহাদত হোসেন জানিয়েছেন। এ ঘটনায় প্রয়াত চেনু বিশ্বাসের ছোট ছেলে জীবন বিশ্বাস থানায় অভিযোগ দিয়েছে।
এদিকে কবর থেকে লাশের মাথা ও হাত কেটে নেওয়ার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনাতা তা দেখার জন্য উপজেলার পার্শ্ববর্তী মানিকদিয়াড় কবরস্থানে ভিড় করে। অসুস্থতার কারনে গত ৪ ফেব্রয়ারী সকালে মির্জা আলম চেনু বিশ্বাসের মৃত্যু হয়। পরে তাকে ওই কবরস্থানে দাফন করা হলে বুধবার রাতের আধাঁরে দৃবৃর্ত্তরা এমন কান্ড ঘটিয়েছে বলে এলাবাসীর ধারণা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...