• আপডেট টাইম : 05/02/2021 01:23 PM
  • 226 বার পঠিত
  • আওয়াজ প্রতিবেদক
  • sramikawaz.com

আগে কারখানায় কাজ না থাকলে বা কম থাকলে শ্রম-আইন অনুসারে প্রথম ৪৫ দিন এবং পরে আরো ১৫ দিন অর্থাৎ লে-অফ এর মেয়াদ সর্বোচ্চ ৬০ দিন ছিল। এরপর শ্রমিকদের চাকুরীতে পুনঃবহাল অথবা টার্মিনেশন অনুসারে ক্ষতিপূরন দিতে হতো। বর্তমানে “তদূর্দ্ধ” শব্দ ব্যবহারের মাধ্যমে মালিকেরা ৪০% বেতন দিয়ে মাসের পর মাস শ্রমিকদের লে-অফ এ রাখছে। এতে শ্রমিকেরা দারুন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

অনেক গার্মেন্টস কারখানায়ই “তদূর্দ্ধ” শব্দের সুযোগ নিয়ে ২ মাসের জায়গায় ৩,৪ এমনকি ৫ মাস পর্যন্ত লে-অফ এর সময়সীমা বৃদ্ধি করে শ্রমিকদেরকে নামমাত্র মজুরী দিয়ে শ্রমিক হয়রানী করা হচ্ছে। ফলে অনেক গার্মেন্টস শ্রমিকই বাধ্য হয়ে কারখানা ছেড়ে অন্য কারখানায় চাকুরী নিচ্ছে। গার্মেন্টস মালিকদেরকে কোনো রকম ক্ষতিপূরন দিতে হচ্ছেনা। লে-অফ এর সময়সীমা মাসের পর মাস বৃদ্ধি করে গার্মেন্টস শ্রমিক হয়রানীর প্রতিবাদে এবং লে-অফ এর সময় সীমা সর্বোচ্চ ৪৫ দিনের বেশি করা চলবেনা-এই দাবীতে জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের উদ্যোগে ৫ ফেব্রæয়ারী শুক্রবার সালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে গার্মেন্টস শ্রমিকরা লাল পতাকা মিছিল বের হয়।

প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে বের হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে তোপখানা রোডস্থ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলের আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ফেডারেশনের সভাপতি আমিরুল হক্ আমিন।

বক্তব্য রাখেন ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক আরিফা আক্তার, কেন্দ্রীয় নেতা মো. ফারুক খান, সাফিয়া পারভিন, রফিকুল ইসলম রফিক প্রমূখ।
সংহতি বক্তব্য রাখেন ইন্ডাষ্ট্রিঅল বাংলাদেশ কাউন্সিল এবং একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...