• আপডেট টাইম : 22/11/2020 07:42 PM
  • 130 বার পঠিত
  • বিশেষ প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া থেকে
  • sramikawaz.com

কুষ্টিয়ায় অবস্থিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বলেছেন, নানা বাধা-প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শি¶া¶েত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। তিনি বলেন, ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’, ‘মুক্তির আহবান’ ও ‘শ্বাশত মুজিব’ ম্যুরাল, শহীদ মিনার, শহীদ স্মৃতিসৌধ, ‘মুক্ত বাংলা’ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এসব স্থাপনা এবং কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু কর্ণার, মুক্তিযুদ্ধ কর্ণার ও একুশে কর্ণার আমাদের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও মহান মুক্তিযুদ্ধকে ধারণ করে আছে।
৪২তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপল¶ে আজ রোববার (২২ নভেম্বর) বেলা ১১ টায় প্রশাসন ভবনের সভাক¶ে কেক কাটা অনুষ্ঠানে উপাচার্য আরও বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য সত্যিই মনোমুগ্ধকর। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে আজ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও শ্রীবৃদ্ধিতে যারা অবদান রেখেছেন তিনি তাঁদের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। সকলের সহযোগিতায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়কে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে ৪২তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভেচ্ছা জানান। এরপর তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে ৪২তম জন্মদিনের কেক কাটেন।
এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় দিবসটি উপল¶ে প্রশাসন ভবন চত্বরে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম এবং বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান। এ সময় ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন। পতাকা উত্তোলন শেষে শান্তি ও আনন্দের প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এরপর প্রশাসন ভবনের পাশে দু’টি গাছের চারা রোপণ করে তিনি ৪২তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপল¶ে ৪২টি ফলজ ও বনজ গাছের চারা রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস কর্মসূচীতে ডিনবৃন্দ, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, হল প্রভোস্টবৃন্দ, অফিস প্রধানগণ এবং বিভিন্ন সমিতি, পরিষদ, ফোরাম ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...