sa.gif




"একর্ড নিয়ে রাজনৈতিক বক্তব্য না দিয়ে পক্ষগুলো বসে ঠিক করা উচিত"


 

আওয়াজ প্রতিবেদক: তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকের নিরাপত্তায় একর্ড এর দ্বিতীয় মেয়াদে কাজ করার ঘোষণায় সরকারে দুই মন্ত্রী রাজনৈতিক বক্তব্য দিচ্ছেন বলে মনে করেন বাংলাদেশ ইনিস্টিউট অব লেবার স্টাডিজ- বিল্স এর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ সুলতান উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ভুল বুঝাবুঝির থাকলে পক্ষগুলোর এক সাথে বসে করনীয় নির্ধারণ করা উচিত। তা না করে রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়ার ফলে তিক্ততার পরিবেশ সৃষ্টি হতে পারে। শ্রমিক আওয়াজ এর সাথে এক সাক্ষাতকারে তিনি এ কথা বলেন।


তিনি বলেন, দেশের ক্লান্তিকালে একর্ড প্রতিষ্ঠা প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। তখন সবাই এই একর্ডকে স্বাগত জানিয়েছিল। রানা প্লাজা ধসের পর বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের ক্রেতারা যখন বিশ্বের বাজার পোশাক বিক্রি করতে গিয়ে প্রতিবন্ধকতার সম্মুখিন হচ্ছিলো তারই প্রেক্ষিতে এই একর্ড প্রতিষ্ঠা। এখন একর্ড দ্বিতীয় মেয়াদে আরও তিনবছর সময় বৃদ্ধির কথা বলছে । এ অবস্থায় মালিকরা এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। সরকারের দুই মন্ত্রী রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়ে বেড়াচ্ছেন। একর্ডকে সরকার ও মালিকের প্রতিপক্ষ হিসাবে দাঁড় করিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এটা নিয়ে রাজনৈতিক ইস্যু করা ঠিক না।

সুলতান আহমেদ বলেন, এটা ঠিক, একর্ড যেভাবে কাজ করার কথা ছিল, সেভাবে করতে পারেনি। আবার এ থেকে সরকারের লোকজনের যে দক্ষতা অর্জনের কথা ছিল সেটাও পারেনি। একর্ড শ্রমিকদের নিরাপত্তার প্রশ্ন তুলে যেভাবে কারখানা বন্ধ করেছে। সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের উচিত ছিল তা শিখে শ্রমিক ও শিল্পের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে কারখানার বন্ধ করার দক্ষতা অর্জন করার। কিন্তু তা পারেনি। এ কারণেই প্রশ্ন উঠেছে দ্বিতীয় মেয়াদে একর্ড এর মেয়াদ বৃদ্ধি।

একর্ড কারখানার সংস্কারের জন্য দ্বিতীয় মেয়াদে যে ব্যয়বহুল কর্মকান্ড হাতে নিয়েছে তা ঠিক হয়নি উল্লেখ করেন তিনি বলেন, একর্ড এর উচিত ছিল এটা তুলনামূলক কম খরচের কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা। মানুষের জীবনের নিরাপত্তা আগে। তবে শিল্পের সক্ষমতার বিষয়টিও বিবেচনা করতে হবে।

একর্ড শ্রমিকের নিরাপত্তার কথা বলছে। কর্মস্থলে শ্রমিকরা যেন নিরাপদে কাজ করতে পারে। তার মানে শ্রমিকদের নিরাপত্তার জন্যই একর্ড। এখন প্রশ্ন উঠেছে একর্ড কর্তৃক কারখানা বন্ধ করে দেওয়ার ফলে অনেক শ্রমিক বেকার হচ্ছে। এটা একর্ড এর উদ্দেশ্যের সাথে সংঘার্ষিক। তাই একর্ড কর্তৃক কারখানা বন্ধ ঘোষণার পর ওই কারখানার শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের কথা চিন্তা করতে হবে উচিত বলে মনে করেন শ্রমিক নিয়ে গবেষণা প্রতিষ্ঠান বিল্স এর এই নির্বাহী পরিচালক।






Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaz@yahoo.com
Contact: +880 1712 557138, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Nex-Ge Technologies Ltd.