sa.gif

শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের ঘটনায় গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্কের উদ্বেগ
আওয়াজ প্রতিবেদক :: 20:45 :: Sunday January 19, 2020 Views : 31 Times

একজন নার্সের নির্যাতেনের শিকার হয়ে শিশু গৃহকর্মী হাসপাতালে যাওয়ার ঘটনায় গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নটওয়ার্ক বিষ্ময়, উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করছে এবং এই ঘটনায় দায়ী ব্যক্তির উপযুক্ত বিচার দাবি করছে।

পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে জানা যায়, ১০ বছরের শিশুটিকে রাজধানীতে গৃহকর্মীর কাজ করতে পাঠিয়েছিলেন তার মা। তারপর দুই বছর সময় বয়ে যায়। ছোট্ট সেই শিশুটির ওপরই চড়াও হন গৃহকর্ত্রী। মুরগি চুরির অভিযোগে খুন্তি আগুনে গরম করে সেটার ছেঁকায় পুড়িয়ে দেন তার শরীরের বিভিন্ন অংশ। এখানে শেষ নয়, এক সপ্তাহ থেকে শিশুটিকে কোন চিকিৎসাও করান নি ওই গৃহকর্ত্রী। শেষমেষে গত শুক্রবার শিশুটি পালিয়ে পাশের বাড়িতে আশ্রয় নিলে চিকিৎসার জন্য তাকে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে। শিশু নির্যাতনের এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায়। শিশুটির বাড়ি পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার হাজিরা গ্রামে। অভিযুক্ত গৃহকর্ত্রী দিলারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাষ্টিক সার্জারি ইউনিটে নার্সের চাকরি করেন। এ ঘটনায় তাঁর স্বামী রাজীবকে আটক করেছে যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ।বিভিন্ন কাজের অজুহাতে শিশুটিকে প্রায়ই মারধর করতেন গৃহকর্ত্রী। সপ্তাহখানেক আগে ওই পরিবারের একটি মুরগি হারিয়ে যায়। শিশুটি ওই মুরগিটি মেরে ফেলে দিয়েছে, এমন অভিযোগ আনেন গৃহকর্ত্রী। গরম খুন্তি দিয়ে দুই পায়ের ঊরু এবং পেছনে ছেঁকা দেন। যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা মাজহার ইসলাম বলেন, শিশুটির দুই পায়ে পোড়া জখম আছে। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

একজন নার্স যেখানে মানবতার সেবা করে মৃত্যুপথযাত্রী রোগীকে সুস্থ করে তোলেন, সেখানে একই পেশার অন্য একজন মানুষ দ্বারা এই ধরনের নিষ্ঠুর, বর্বর, ও অমানবিক আচরন কিভাবে সম্ভব তা ভেবে দেখা দরকার। এই ধরনের ঘটনা এই মহৎ পেশার সুনামকেও প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারে বলে নেটওয়ার্ক মনে করছে।

নেটওয়ার্ক ঘটনার জন্য দায়ি ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় এনে অনতিবিলম্বে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করে এ ধরনের ঘটনা বন্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সরকার ও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্ক মনে করছে, সম্প্রতি সরকার ঘোষিত ‘গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি ২০১৫’ বাস্তবায়ন না হওয়ায় দেশে একের পর এক অনাকাঙ্খিত কারণে গৃহশ্রমিকের মৃত্যু ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। তাই নেটওয়ার্ক অবিলম্বে নীতি বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

 



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution