sa.gif

‘৬০ ভাগ মজুরি দেওয়ার সিদ্ধান্ত মালিকদের দ্বিচারিক আচরণের প্রকাশ ’
আওয়াজ প্রতিবেদক :: 14:29 :: Tuesday May 19, 2020 Views : 214 Times

ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সমাবেশে বক্তারা বলেছেন ২০ মের মধ্যে শ্রমিকদের সকল পাওনা ও শতভাগ ঈদ বোনাস পরিশোধ করুন। তা নাহলে কোন অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে মালিকদের পুরো দায় নিতে হবে। তারা বলেন, মালিকদের এই সিদ্ধান্ত দ্বিচারিক মনোভঙ্গির প্রকাশ।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক সমাবেশে শ্বরমিক নেতৃবৃন্দ এ কথা বলেন। সমাবেশ ও মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি বিশিষ্ট শ্রমিক নেতা সহিদুল্লাহ চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন মন্টু ঘোষ, রুহুল আমিন, আসলাম খান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। ঘোষনা পাঠ করেন টিইউসির দপ্তর সম্পাদক ও জাতীয় নারী শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারন সম্পাদক সাহিদা পারভীন শিখা।


শ্রমিক সমাবেশে শ্রমিক নেতৃবৃন্দ বলেন, ঘাতক ব্যাধি করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারী আকারে আবির্ভূত হয়ে গোটা পৃথিবীকে স্তব্ধ করে দিয়েছে। এর ফলে পুরো পৃথিবী কয়েকমাস যাবৎ কার্যত অবরদ্ধ রয়েছে। একই অবস্থা আমাদের দেশেরও।

বৈশ্বিক করোনা মহামারি বাংলাদেশে সাধারন ছুটি ও অঘোষিত লকডাউন চলাকালীন সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে নিম্নআয়ের খেটে খাওয়া শ্রমজীবী ও মেহনতি মানুষ। আমরা সকলেই জানি শ্রমজীবী মানুষই হলো দেশের উৎপাদন ও অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি। তাই দেশের এই বিশেষ পরিস্থিতিতে শ্রমজীবী মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং তাদের পরিবার পরিজনের জীবন ও জীবিকার নিশ্চয়তা বিধান করা জরুরী।

শুরু থেকেই সরকারের নির্দেশনা ছিল শিল্পের স্বার্থে শ্রমিক কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে, কোনভাবেই শ্রমিকদের ছাঁটাই ও কারখানা লে-অফ করা হবেনা এবং উপস্থিত অনুপিস্থত সকল শ্রমিকদের নিয়মিত বেতন-ভাতা পরিশোধ করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী রপ্তানিমুখী শিল্পের শ্রমিকদের তিন মাসের বেতন-ভাতা পরিশোধের জন ̈ মালিকদেরকে ৫ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনাসহ নানামুখী কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন।
বক্তারা বলেন, দু:খ ও পরিতাপের বিষয় হলো সরকারের সিদ্বান্ত উপেক্ষা করে গার্মেন্টস ও ট্যানারিসহ কিছু কিছু শিল্প কারখানার মালিক অমানবিক ও নিন্দনীয় ভাবে তাদের শিল্প কারখানা লে-অফ করছে এবং হাজার হাজার শ্রমিককে চাকুরীচ্যুত করছে।

কিছু কিছু কারখানায় এখনো মার্চ মাসের বেতন-ভাতাও দেয়া হয়নি। এছাড়া অধিকাংশ কারখানায় সরকার নির্ধারিত সময়ের মধে ̈ বেতন-ভাতা দেয়া হচ্ছে না। ছাঁটাই, লে-অফ, নির্ধারিত সময়ের মধে ̈ বেতন-ভাতা পরিশোধ না করা এবং অনুস্থিতির ৬০ ভাগ বেতন বেতন প্রদানের সিদ্বান্তে শ্রমিকদের মধে ̈ অসন্তোষ সৃষ্টি করছে, যা বর্তমান পরিস্থিতির জন্য উদ্বেগজনক। মুনাফালোভী মালিকদের এহেন দ্বিচারিক আচরণ ও অমানবিক কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।


তারা বলেন, আজকের এই সমাবেশ থেকে আমরা আগামী ২০মে'র মধে শ্রমিকদের বেসিক সমপরিমাণ ঈদ বোনাস ও সকল বকেয়া পরিশোধের দাবী জানাচ্ছি। অন্যথায় বেতন-ভাতা ও ঈদ বোনাসের দাবীতে শ্রমিকরা রাস্তায় নামলে উদ্ভুত পরিস্থিতির জন্য মালিকরা দায়ি থাকবে। একই সাথে নির্মাণ ও পরিবহণসহ অসংগঠিত খাতের সকল শ্রমিকদের নগদ অর্থ ও রেশন কার্ডের মাধ ̈মে তাদের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিৎ করার দাবী জানাচ্ছি।



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution