sa.gif

ছাটাই ২০০ শ্রমিক
মালিকপক্ষ বলল, ট্রেড ইউনিয়ন করার পরিনাম
গাজী মামুন, জয়দেবপুর, গাজীপুর থেকে :: 18:19 :: Friday September 6, 2019 Views : 230 Times

ট্রেড ইউনিয়ন করে নিজেদের দাবি আদায় ও শিল্পের উন্নয়নে দরকষাকষি করতে চেয়েছিলেন গাজীপুরের অবস্থিত পোল স্টার ফ্যাশন ডিজাইন লি: শ্রমিকরা। কিন্তু ট্রেড ইউনিয়ন করার চেষ্টা করাই কাল হয়েছে ২০০ এর অধিক শ্রমিকের। কারখানাটির যে সব শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন করার চেষ্টা করেছিল তালিকা করে একে একে সব শ্রমিককে ছাটাই করা হয়েছে। ছাটাইকালে এ সব শ্রমিকদের ন্যুনতম আইনি অধিকারের ধার ধারেনি পোল স্টার ফ্যাশন ডিজাইন।

বিষয়টি নিয়ে পোল স্টার ফ্যাশন ডিজাইনের শ্রমিকরা জানান, কারখানাটির শ্রমিকরা ‘পোল স্টার ফ্যাশন ডিজাইন লি: শ্রমিক সংহতি ইউনিয়ন’ নামে নিবন্ধনের জন্য ২০১৮ সালের ৭ আগস্ট রাজধানীর ৪ রাজউক এভিনিউ অবস্থিত শ্রম অফিসে আবেদন জমা দেয়। এরপর ২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর শ্রম ভবনের সহকারি পরিচালক আতাউর রহমান শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়নের নিবদ্ধনের আবেদনের সত্যতা সরেজমিনে যাচাই করতে কোনাবাড়ীতে অবস্থিত শ্রমিকদের প্রস্তাবিত ট্রেড ইউনিয়ন কার্যালয়ে যায়। কারখানার ছাটাই হওয়ার শ্রমিকরা জানান, ওইদিন অফিসে প্রস্তাবিত ট্রেড ইউনিয়নের সভাপতি শ্রাবনী ও সাধারণ সম্পাদক আ. জলিলসহ প্রায় শতাধিক শ্রমিক উপস্থিত ছিলেন। এর মধ্যে থেকে ১৯ জন শ্রমিকের স্বাক্ষর যাচাইয়ের জন্য গ্রহণ করে। শ্রমিকদের পক্ষ থেকে আরও শ্রমিকের স্বাক্ষর চাইলে আতাউর রহমান জানান, এতেই হবে। আর প্রয়োজন নেই। আতাউর রহমান স্বাক্ষর নিয়ে চলে যাওয়ার পর থেকে শ্রমিকের ভোগান্তি শুরু হয়; শুরু হয় ছাটাই। ছাটাই শুরু হওয়ার তারিখটি  ১৬ সেপ্টেম্বর বলে উল্লে করেন শ্রমিকরা। 

 
পোল স্টার ফ্যাশন ডিজাইনের শ্রমিকরা জানান, এরপর ২৫ সেপ্টেম্বর শ্রম ভবন থেকে সহকারী পরিচালক আতাউর রহমান প্রতিবেদনে জানান, আবেদেনর সাথে সরেজমিনে পাওয়া শ্রমিকের স্বাক্ষরের মিল নেই। এবং তদন্তকালে উপস্থিত শ্রমিকের সংখ্যা ছিল মাত্র ১৯জন। এরপর থেকে শ্রমিকদের ছাটাইয়ের মাত্রা আরও বেড়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ট্রেড ইউনিয়নের জন্য যে সব শ্রমিক ডি-ফরম পূরণ করেছিল-এ রকম ২০০ এর অধিক শ্রমিককে ছাটাই করা হয়।

শ্রমিকরা অভিযোগ করে, তখন কারখানার মালিক পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল-এই ছাটাই ট্রেড ইউনিয়ন করার পরিনাম। শ্রমিকরা জানান, কলকারখানা অধিদপ্তরের লোকজনদের সাথে যোগ সাজসের কারণে ট্রেড ইউনিয়ন বাতিল করা হয় এবং শ্রমিকদের ছাটাই করে। মালিকপক্ষে সাথে ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধন কর্তপক্ষের অবৈধ লেনদেনের অভিযোগের অভিযোগ করে শ্রমিকরা।


বিষয়টি নিয়ে ফোনে আতাউর রহমানের মন্তব্য চাইলে তিনি শ্রমিক অওায়াজকে বলেন, শ্রমিকরা যে অভিযোগ করছে সেটা সত্য নয়। আমাদের মাধ্যমে শ্রমিকদের ট্র্রেড ইউনিয়ন করার বিষয়টি মালিকের জানার কোন সুযোগ নেই। আমরা সরেজমিনে গিয়ে যত শ্রমিক উপস্থিত থাকে, বিশেষ করে কার্যনির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দের  স্বাক্ষর নিয়ে থাকি। সেদিনও সেটা নিয়েছিলাম। তিনি জানান, বদলি হয়ে তিনি এখন অন্য জোনের দায়িত্ব পালন করছেন। কাগজপত্র না দেখে বিস্তারিত বলা সম্ভব নয়।



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution