sa.gif

ট্যানারী শ্রমিককে নিয়োগপত্র দিতে হবে
টিএস/বিএস :: 19:56 :: Tuesday July 9, 2019 Views : 101 Times


শ্রম আইন অনুযায়ী ট্যানারী শিল্পের প্রত্যেক শ্রমিককে নিয়োগপত্র, পরিচয় পত্র, সার্ভিস বুক ও হাজিরা কার্ড প্রদানের দাবি জানিয়েছেন ট্যানারী ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) ট্যানারী ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন- ইউনিয়নের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ। উপস্থিত ছিলেন লেবার ফাউন্ডেশনের (বিএলএফ) চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান, লেবার ফাউন্ডেশন (বিএলএফ) এর মহাসচিব জেড.এম কামরুল আনাম ও ট্যানারী ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক প্রমুখ।

ইউনিয়নের পক্ষ থেকে শ্রমিক স্বার্থ সংরক্ষণ, শ্রম আইনের বাস্তবায়ন এবং পরিবেশ বান্ধব শিল্প বিকাশে নিম্ন লিখিত দাবি সমূহ বাস্তাবয়নে আহ্বান জাননো হয় এ সংবাদ সম্মেলন থেকে।

নেতৃব্ন্দৃ বলেন- নিয়োগপত্র ছাড়া কোনো শ্রমিককে চাকরিতে নিয়োগ করা যাবে না। ট্যানারী শ্রমিকদের জন্য সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি সকল কারখানাতে অবিলম্বে বাস্তবায়ন করতে হবে। দ্বি-পক্ষীয় চুক্তির সমস্ত শর্তাবলী অবিলম্বে বাস্তবায়ন করতে হবে। তারা বলেন, শ্রম আইন/চুক্তি অনুযায়ী শ্রমিকদের পেশাগত স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা, অগ্নি নিরাপত্তা, শোভন কাজ ও কর্মপরিবেশ নিশ্চিত সহ সেফটি কমিটি গঠন করতে হবে এবং ব্যক্তিগত সুরক্ষা উপকরণ সরবরাহ ও এর ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। এর পাশাপাশি শ্রম আইন অনুযায়ী ৮ ঘণ্টার অতিরিক্ত কাজ করানো যাবে না এবং সাপ্তাহিক ছুটি সহ চুক্তি অনুযায়ী শ্রমিকদেরকে সকল ছুটি দিতে হবে। তারা বলেন, ইউনিয়নের সদস্য হওয়ার কারণে উদ্দেশ্য মূলক ও নিয়ম বহির্ভুতভাবে কোনো শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করা যাবে না এবং যে কোনো সময় শ্রমিকদেরকে জোর পূর্বক বিনা বেতনে ও বিনা কারণে ছুটি দেয়া যাবে না। ট্যানারী শিল্পে কর্মরত নারী শ্রমিকদেরকে সমকাজে সমান মজুরি এবং শ্রম আইন ও দ্বি-পক্ষীয় চুক্তি অনুযায়ী মাতৃত্বকালীন ছুটি দিতে হবে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, শ্রম আইনের বিধান অনুযায়ী যেসব কারখানা নিজস্ব ক্যান্টিন করার আওতায় পড়ে, সে সকল কারখানাতে অবিলম্বে শ্রমিকদের জন্য ক্যান্টিন ব্যবস্থা চালু করতে হবে এবং যে সকল কারখানা শ্রম আইনের বিধানমতে নিজস্ব ক্যান্টিন করার আওতায় পড়ে না, সে সব কারখানার শ্রমিকরা যাতে খাবারে কষ্ট না পায় সেজন্য সাধারণ ক্যান্টিনের ব্যবস্থা চালু করতে হবে। নেতৃবৃন্দ বলেন, তাদের এসব দাবি ঈদুল আজহার আগে আলোচনার মাধ্যমে বাস্তবায়নের দাবি জানান। তা না হলে ট্যানারী শ্রমিকেরা বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি দেয়া হবে।

সুত্র ,জাগরণ



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution