sa.gif

মহান মে দিবসের দাবি আজও উপেক্ষিত
রফিকুল ইসলাম সুজন :: 01:08 :: Friday May 1, 2020 Views : 335 Times

আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস। মহান মে দিবেস সকল শ্রমজীবী পেশাজীবী ভাই-বোনদেরকে জানাই সংগ্রামী শুভেচ্ছা। মে দিবসের চেতনাকে ধারণ করে শ্রমিকের অধিকার আদায়ের শপথ অত্যন্ত বহন করে।

১৮৮৬ সালে মে দিবসটি আমরা শ্রমিকের যে আন্তত্যাগের বিনিময়ে পেয়েছি, সেই যুদ্ধ এখনও অব্যাহত রয়েছে। আট ঘন্টা কর্ম, আট ঘন্টা বিশ্রাম,আট ঘন্টা শিক্ষা ও বিনোদন -এভাবে ভাগ করে কর্মপরিকল্পনা ও আইন প্রণীত হয়ছে।

এ কথা কেবলমাত্র মুখে যা বাস্তবে নেই বললেই চলে। যেমনিভাবে পোশাক শ্রমিকদের ক্ষেত্রে একই দেশে দু'আইন চলমান। এখনও দেশের সরকার কর্মকর্তা -কর্মচারীদের ক্ষেত্রে মাতৃত্বকালীন ছুটি দেয়া হয় ছয় মাস,কিন্ত শিল্প শ্রমিকদের ক্ষেত্রে তা দেয়া হয় চার মাস।

শ্রম আইন অনুযায়ী কোন কারখানায় ১০০ জন শ্রমিক থাকলে ট্রেড ইউনিয়ন গঠনের অধিকার সংরক্ষিত রয়েছে।কিন্ত যদি কোন কারখানার শ্রমিক ঐক্যবদ্ধভাবে এক হতে চায়,তাহলে কারখানার মালিক হয় তাদের বের করে দেয়,না হয় তাদের নামে অসৎ আচরণের মামলা দায়ের করে।

শ্রমিকের সামনে অধিকার আদায়ের আন্দোলন ও বাস্তবায়ন রয়েছে এ রকম হাজারও বাধা, চ্যালেঞ্জ।ডা মোকাবেলা করে সাম্প্রতিক আন্দোলনরত শ্রমিকেরা মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।

২০১৬ সালে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি বেতন বাড়ানোর নামে শ্রমিকের ও শ্রমিক নেতাদের যে মিথ্যা, ভুয়া এবং বাতিলকৃত ধারায় তাদের গ্রেফতার এবং রিমান্ড দিয়ে শ্রমিক এবং নেতাদের নামে মামলা এখনো চলমান।

দেশের শ্রমিকদের প্রতি এই চরম দুর্দিনে পাশে দাঁড়ানোর মত কেউ নেই,কোথায়ও কোন অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন নেই, নেই শ্রমিকের বাঁচার মত নূন্যতম মজুরী।সবাইকে আবারো মে দিবসের চেতনাকে কেন্দ্র করে, কর্মক্ষেত্রে নারী শ্রমিকদের প্রতি বৈষম্য বন্ধ,মাতৃত্বকালিন ছুটি ছয় মাস, অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন,সহিংসতা, ধর্ষণ,নির্যাতনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার ব্যক্ত করছি।


করোনার প্রাদুর্ভাব ও সংক্রমন ঠেকাতে মে দিবসের সকল কর্মসূচী বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়ছে । মুলত করোনার প্রাদুর্ভাব ও সংক্রমন ঠেকাতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়।

ঘরে বসে ব্যাতিক্রম ভাবে শ্রমিকদের মে দিবস পালনের জন্য আহবান জানান। ঘরে বসে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এই এবার মে দিবস পালনের জন্য বলেন।

এবার কোন র‌্যালী সভা সমাবেশ না করার জন্য অনুরোধ জানান । এ সময় কোন ধরনের জামায়েত হয় এমন সকল আয়োজন থেকে বিরত থাকার জন্য সকল শ্রমিকদের আহবানও জানান তিনি।

 

রফিকুল ইসলম সুজন: সভাপতি, বাংলাদেশ গার্মেন্টস এন্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশন।



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
11/1/B, Kobi Josimuddin Road, Uttor Komlapur,Motijheel, Dhaka-1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution