sa.gif

সরকারের ভুল নীতির কারণে কৃষি ও কৃষক বিপন্ন হয়ে পড়েছে: কৃষক সমিতি
আওয়াজ প্রতিবেদক :: 18:27 :: Saturday February 10, 2018 Views : 8 Times

রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে কৃষক নেতৃবৃন্দ বলেছেন, সরকারের ভুল নীতির কারণে কৃষি ও কৃষক আজ বিপন্ন হয়ে পড়েছে। তারা বলেন, কৃষি কাজে সেচ সুবিধা নেই ও পুরোপুরি বিদ্যুতায়নের ব্যবস্থা হয়নি। বিএডিসিকে অকার্যকর করায় কৃষি উপকরণ নিয়ে ব্যবসা করেছে বহুজাতিক কোম্পানী ও মধ্য¯^ত্বভোগী লুটেরা গোষ্ঠী। অথচ ৮০ ভাগ মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কৃষির উপর নির্ভরশীল। ১৬ কোটি মানুষের খাদ্যের যোগান আসে এই কৃষি থেকে।
শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারি পুরানা পল্টনের মুক্তিভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে কৃষক নেতারা এ কথা বলেন। কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মোর্শেদ আলীর সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাড. এস এম এ সবুর, লীনা চক্রবর্তী, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হোসেন খান, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য নিমাই গাঙ্গুলী, আবিদ হোসেন, সুকান্ত শফী চৌধুরী ও রোমান হায়দার।

বক্তারা বলেন, ভেজাল সার ও বীজ ব্যবহার করে প্রতি বছর আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কৃষক। বন্যা, খরা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিপূরণ পায় না কৃষক। ভূমি অফিস ও পল্লী বিদ্যুতে অবাধে চলছে অনিয়ম ও দুর্নীতি। আলু ও সবজি সংরক্ষণে পর্যাপ্ত কোন কোল্ড স্টোরেজ নাই। কঠোর পরিশ্রম করে ফসল ফলায় কৃষক, কিন্তু ফড়িয়া ও মধ্যস্বাত্বভোগীদের দাপটে ফসলের দাম পায় না।
স্বাধীনতার চারযুগেও দেশে কার্যকর ভূমি সংস্কার হয়নি উল্লেখ কওে বক্তারা বলেন, ভূমি ব্যবহার নীতিমালা না থাকার কারণে কৃষিজমিতে অবাধে অপরিকল্পিত কলকারখানা ও আবাসন গড়ে উঠছে। কৃষক জমি হারিয়ে অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে পাড়ি জমাচ্ছে দেশ-বিদেশের কাজের সন্ধানে। কৃষি জমি চলে যাচ্ছে লুটেরা ধনিকদের হাতে। এই অবস্থা চলতে থাকলে এক সময় কৃষি জমি নিঃশ্বেষ হয়ে যাবে, ভেঙ্গে পরবে আমাদের খাদ্য নিরাপত্তা।

কৃষির চলমান সমস্যা সমাধানে কৃষক সমিতির ২১ দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে জোরদার কৃষক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য ও কৃষি-কৃষক বাঁচাতে সংগ্রামের ঐতিহ্যবাহী কৃষক সংগঠন বাংলাদেশ কৃষক সমিতির ত্রয়োদশ জাতীয় সম্মেলন আগামী ১৫ ও ১৬ ফেব্রæয়ারি খুলনার শহীদ হাদিস পার্কে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। জাতীয় সম্মেলন সফল করতে দেশব্যাপী তৃণমূল সংগঠন-গ্রাম কমিটি থেকে শুরু করে উপজেলা- জেলা কমিটি সাংগঠনিক পরিকল্পনা গ্রহণ করে ও তা বাস্তবায়নে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে উদ্যোগী ভূমিকা পালন করছে।

নেতৃবৃন্দ দাবি জানান, ভূমি ব্যবহার নীতিমালা ও কার্যকর ভূমি সংস্কার করতে হবে; বিএডিসিকে সচল ও বিএডিসির মাধ্যমে সস্তায় কৃষি উপকরণ ও ভাড়ায় কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ, ধান, গম, পাট, ভুট্টা, সব্জিসহ ফসলের লাভজনক দাম প্রদান করতে হবে; ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকারি ক্রয়কেন্দ্র চালু করে খোদ কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ফসল ক্রয় করতে হবে; আলু ও সবজি সংরক্ষণের পর্যাপ্ত কোল্ডস্টোরেজ নির্মাণ ও কৃষিভিত্তিক শিল্প গড়ে তোলা, ভূমি অফিস ও পল্লী বিদ্যুতের অনিয়ম-হয়রানি দুর্নীতি বন্ধ করা করতে হবে এবং শষ্যবীমা ও পল্লী রেশনিং চালু কর করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, কৃষক সমিতির জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ১৫ ফেব্রæয়ারি দুপুর ২টায় খুলনার শহীদ পার্কে এবং কাউন্সিল অধিবেশন ১৬ ফেব্রæয়ারি শুক্রবার সকাল ১০টায় খুলনার প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে। প্রবীণ কৃষক নেতা আব্দুল আজিজ তালুকদার সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন। সম্মেলনের উদ্বোধনের পর কৃষক নেতৃবৃন্দ, জাতীয় নেতৃবৃন্দ ও ভাতৃপ্রতীম বিভিন্ন গণসংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা রাখবেন। বক্তৃতা পর্ব শেষে লাল কাপড়ে কৃষকের প্রতীক কাস্তে এবং লাঙ্গল খচিত হাজার হাজার পতাকা, কৃষকের দাবীসম্বলিত শত ফেস্টুন-প্ল্যাকার্ড, ব্যানার, কৃষকের মাথাল, কোদাল, কাস্তে, লাঙ্গলসহ বিভিন্ন উপকরণে সজ্জিত হয়ে প্রায় পনের হাজার কৃষকের একটি র‌্যালী খুলনা শহরের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করবে।



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution