sa.gif

নারী কর্মচারিকে প্রকাশে মারধর
আওয়াজ প্রতিবেদক :: 07:23 :: Wednesday September 9, 2015


কাজ করতে রাজি না হওয়ায় সিলেটের অম্বর খানায় প্রকাশে দিনদুপুরে এক টেইলার্স শ্রমিককে মারধর করেছে  টেইলার্স ব্যবসায়ী ।

 মারধরের সময় পুলিশ ব্যবসায়ী তপুকে হাতেনাতে আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়। তবে এর কিছুক্ষণ পরই তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার ৮ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর আম্বরখানার সেন্ট্রাল প্লাজার সামনে শ্রমিককে মারধরের ঘটনাটি।

রাতে এ ব্যাপারে আম্বরখানা ফাঁড়ির ইনচার্জ শেখ মো ইয়াসিন গণমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেন,  তিনি মামলা সক্রান্ত কাজে সারাদিন আদালতে ছিলেন। নারীকে পেটানোর দায়ে একজনকে ফাঁড়িতে নিয়ে আসার কথা শুনেছিলেন। তবে সন্ধ্যার পর ফাঁড়িতে এসে তাকে আর পান নি। এ ব্যাপারে আর কিছু জানেন না বলেও জানান ইয়াসিন।
আর বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গৌসুল আলম বলেছেন,  নারীকে মারধরের কোনো অভিযোগ তিনি পান নি। অভিযোগ রয়েছে প্রভাব খাটিয়ে সমঝোতার কথা বলে পুলিশের হাত থেকে ছাড়া পেয়ে যান তপু।

জানা যায়, নির্যাতনের শিকার হওয়া নারী (৩০) তপুর মালিকানাধীন টেইলার্সে কাজ করতেন। কিন্তু গত কয়েকদিন তিনি দোকানে আসেননি।

মঙ্গলবার সকালে ওই নারী দোকানে আসলে তপু তাকে গালিগালাজ করেন। গালিগালাজ শুনে ওই নারী চলে যেতে উদ্যত হলে তপু তাকে রাস্তায় ফেলে মারধর শুরু করেন।

এ ব্যাপারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তপু বলেন, ‘সে আমার দোকানের কর্মচারী। অর্ডারের কাজ নিয়ে ঠিকমত কাজ না করায় আমি তাকে শাসাচ্ছি।’

এসময় আম্বরখানা পয়েন্টে থাকা পুলিশের হাবিলদার নাজিম উদ্দিনসহ কয়েকজন পুলিশ এসে দু’জনকে ধরে আম্বরখানা পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যান।

পুলিশের কাছে নির্যাতিত নারী অভিযোগ করেন, ‘আমার বেতনের টাকা নিয়ে সে (তপু) আমাকে তিন মাস ধরে ঘুরিয়েছে। আজ আমি বেতনের টাকা নিতে এলে সে আমাকে গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে আমি বাসা ফিরে যেতে চাইলে সে আমার পিছু নেয়। পিছু নিচ্ছে দেখে দৌঁড় শুরু করি। এরপর আমাকে রাস্তায় ফেলে মারধরও করে।’



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution